এসএসসিতে দুইবার ফেল করেও বিসিএসে প্রথম

দৈনিক শিক্ষাবার্তাঃ তাইমুর শাহরিয়ার ৩৩ তম বিসিএসে শিক্ষা ক্যাডারে প্রথম হয়েছেন। একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে হতেই পারেন। কিন্তু বিষয়টা এতোটা সহজ ছিলো না কারনে তিনি পরপর দুইবার এসএসসিতে ফেল করেছেন। দুইবার এসএসসিতে ফেল করার পরও কিভাবে শিক্ষা ক্যাডারে ফার্স্ট হলে সেই গল্প শুনুন আজকে–

পঞ্চম ও অষ্টমশ্রেনীতে সাধারন গ্রেডে বৃত্তি পেয়েছেন তাইমুর। পঞ্চম থেকে দশম শ্রেনী বরাবরই প্রথম ছিলেন তিনি কিন্তু এসএসসি পরিক্ষার ফলাফলে দেখেন রসায়নে ফেল। মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়লো। একরাশ হতাশা নিয়ে আবারো পরিক্ষা দিলেন এবারো রসায়নে ফেল।

তবে ছায়া হয়ে পাশে ছিলেন বাবা মোতালেব হাওলাদার। তিনি বলেছিলেন জ্বলার মতো আগুন থাকলে একদিন জ্বলবেই হয়তো কিছুটা দেরিতে। তেমনি প্রতিভা থাকলে একদিন প্রকাশিত হবেই।

আরো পড়ুনঃ

অবশেষে ২০০৩ সালে বরগুনার আমতলী এমইউ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৩.৭৫ জিপিএ নিয়ে এসএসসি পাশ করেন। এবং ২০০৫ সালে ৪.৮০ জিপিএ নিয়ে বরগুনা ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। এইচএসসি পাশের পর ভর্তি হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে। তখন থেকে স্বপ্ন গুলো আবার নতুন করে ধরা দিতে থাকে।

এরপর শুরু করলেন চাকরির পরিক্ষার প্রস্তুতি। ৩১ তম বিসিএসে লিখিত পরিক্ষায় টিকলেও চুড়ান্ত ভাবে পাশ করতে পারেন নি। ৩১ তম বিসিএস ছিলো বিশেষ,তাই অংশগ্রহন করার সুযোগ ছিলো না। ৩৩ তম বিসিএসে হয়ে গেলেন শিক্ষা ক্যাডারে সারা দেশে প্রথম।নিজের সফলতা নিয়ে তাইমুর বলেন, খনিকের জন্য মচকে গিয়েছিলাম কিন্তু ভেঙ্গে পড়ি নাই। বাকীটা আত্মবিশ্বাস আর সাধনার ফল।