ডিসেম্বরের আগে স্কুল না খুললে অটো প্রমোশনঃ মন্ত্রনালয়

0
1763

দৈনিক শিক্ষাবার্তাঃ করোনা মহামারীতে ডিসেম্বরের আগে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব না হলে পঞ্চম শ্রেনীতে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা অটো উঠবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রনালয়ে সচিব আকরাম আল হোসেন ।

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সাথে তিনি এসব কথা বলেন। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কোন সম্ভাবনা নেই বলেও জানান তিনি।

সচিব আকরাম আল হোসেন বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সরকার যদি মনেকরে বাচ্চারা স্কুলে গেলে কোন সমস্যা নাই তখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে। এর আগে নয়। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব না হলে পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ শ্রেনীতে উঠার সনদ দেবেন প্রধানশিক্ষক।

তিনি বলেন যদি আমরা অক্টোবর বা নভেম্বরে স্কুল খুলতে পারি তবে আমাদের দুটি প্ল্যান আছে। সেক্ষেত্রে আমরা ২০ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করবো। একটা ৫২ দিন আরেকটা ৪০ দিনের। যদি অক্টোবরে খোলা যায় তাহলে ৫২ দিন সময় পাবো আর নভেম্বরে খুললে ৪০ দিন।

আরো পড়ুনঃ যেভাবে নবম শ্রেনীতে উত্তীর্ণ হবে শিক্ষার্থীরা

করোনা ভাইরাসের কারনে এবছর জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল পরিক্ষা(জেডিসি) পরিক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। এর পরিবর্তে অষ্টম শ্রেনীতে নিজ নিজ বিদ্যালয়ের মুল্যায়নের ভিত্তিতে নবম শ্রেনীতে উঠবে শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) নির্দেশনা সংক্রান্ত একটি চিঠি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর মঙ্গলবার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষার সব বিভাগের উপ-পরিচালক, জেলা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এবং প্রতিষ্ঠান প্রধানদের পাঠানো হয়েছে। এর আগে গতকাল সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) মাউশি স্বাক্ষরিত এ বিষয়ক নির্দেশনা জারি করে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে করোনা ভাইরাস মহামারীতে সার্বিক বিবেচনায় শুধুমাত্র ২০২০ সালের জেএসসি ও জেডিসি পরিক্ষা না নিয়ে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের মুল্যায়নের ভিত্তিতে নবম শ্রেনীতে উত্তীর্ণ করার প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিবে।

আরো পড়ুনঃ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে যা বললেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব

কেন্দ্রীয় ভাবে নয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলো খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে মন্ত্রনালয় গুলো। এমন তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রী পরিষদ সচিব আনোয়ারুল ইসলাম। গতকাল মন্ত্রী সভার বৈঠকের পর সচিবালয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মন্ত্রীসভার ভার্চুয়াল মিটিং অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের পর সচিবালয়ে ব্রিফিং এ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন কেন্দ্রীয় ভাবে নয় স্ব স্ব মন্ত্রনালয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে।

উল্লেখ্য- গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে। ইতোমধ্যে জেএসসি ও পিইসি পরিক্ষা বাতিল হয়ে গেছে। এইচএসসি পরিক্ষাও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি চলমান আছে।