ছেলের বেতন এক কোটি টাকা শুনে অঝোরে কাঁদলেন বাবা

0
1079

দৈনিক শিক্ষা বার্তাঃ ছেলের মুখে তার নতুন চাকরির কথা শুনে বিশ্বাস করতেই পারছিলেন না তার বাবা। ফ্যালফ্যাল করে তার মুখের দিকে তাকিয়ে থেকে কিছুক্ষন পর জিজ্ঞেস করলেন, কত? উত্তরে ছেলে বললো এককোটি দুই লাখ।এবার বাতসল্যকে বুকে জড়িয়ে ধরলেন বাবা রজনীকান্ত চৌহান। রজনীকান্ত একজন ঝালাই মিস্ত্রী। আর ছেলে বাতসল্য মাইক্রোসফটে চাকরি পেয়েছেন।

গত ডিসেম্বরে ভারতের খড়গপুরে মাইক্রোসফটের ক্যাম্পাসিং হয়। তার পর ৫ দফা পরিক্ষা শেষে তাকে নির্বাচিত করে বিশ্বের সেরা এই টেক জায়ান্ট।

ইন্সটিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি খড়গপুরের ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র বাতসল্য জানিয়েছেন মাইক্রোসফটে চাকরিটা মোটেই সহজ ছিলো না। পাঁচ দফা পরিক্ষা শেষে যখন চাকরিটা নিশ্চিত হন তখন বিশ্বাসই হচ্ছিলোনা। যেমন বিশ্বাস হয়নি তার বাবারও।

বাতসল্য বলেন, ব্যাংক ঋন নিয়ে বাবার পড়ানোতা স্বার্থক হয়েছে। ছোট বেলা থেকে প্রচন্ড মেধাবী ছিলেন তিনি। মাধ্যমিক লেভেলে ভালো রেজাল্ট করার কারনে সরকারী বৃত্তিও পেয়েছিলেন তিনি।

নিজে গরিব হলেও ছেলের পড়াশোনায় খরচ করতে কখনো কার্পন্য করেন নি রজনীকান্ত। যেভাবেই হোক টাকা ম্যানেজ করেছেন। আইআইটি সেন্ট্রাল পরিক্ষায় রেজাল্ট খারাপ করে বাতসল্য। এটা দেখে ছেলেকে কোচিং এ ভর্তি করা রজনীকান্ত। তারপর ভর্তি হন খড়গপুর আইআইটিতে।

বাত্সল্য ছাড়াও আরও পাঁচ সন্তান রয়েছে রজনীকান্তের। তাদের কেউই এখনও প্রতিষ্ঠিত নয়। সকলেই পড়াশোনা করছে। ঝালাই মিস্ত্রি বাবা তাদেরকেও বাত্সল্যের জায়গায় পৌঁছে দিতে বদ্ধ পরিকর।